এ মুভি তো একেবারে অন্য লেভেলে

এক বন্ধুর সাজেশনে মুভিটি দেখা। এর আগে অনেকের নেগেটিভ রিভিউ এবং আইএমডিবিতে ধ্বস দেখেও ভাবলাম ভালো হতেও পারে। তো কেমন লাগলো সে নিয়েই কিছু কথা।

কাহিনীর শুরু ইন্দিরা নামের এক মেয়ের মাধ্যমে যার প্রেমিক তার সাথে শারীরিক ভাবে কাছে আসতে চায় কিন্তু ইন্দিরা তাকে মানা করতে থাকে। ইন্দু আবার অনেক সুন্দরী, পুরো এলাকার বুড়ো বাচ্চা যা আছে সব তার জন্য পাগল।

**Spoiler Alert**

  • Film : Indoo Ki Jawani
  • Language : Hindi
  • imdb: 2/10

starring : kiara advani, aditya seal, mallika dua and so on.

তো সে এক রাতে তার প্রেমিকের বাসায় যায় এবং সেখানে সে দেখে তার প্রেমিক অন্য এক মেয়ের সাথে রাত কাটাচ্ছে। এ দেখে ইন্দু সিদ্ধান্ত নেয় সেও এমন ওয়ান নাইট স্ট্যান্ড খুঁজবে। তো বান্ধবীর পরামর্শ সে ডেটিং এপ ডিন্ডারে একটি একাউন্ট খুলে ।

সেখানে তার পরিচয় হয় সামারের সাথে

সে সামারকে নিজের বাসার ঠিকানা দেয় এবং সামার আসে ইন্দুর সাথে দেখা করতে। কিন্তু পরে ইন্দু জানতে পারে যে সামার আসলে পাকিস্তানি। তখন পাকিস্তান থেকে এক উগ্রবাদী সেই এলাকায় আসে তো ইন্দু মনে করে যে সামারই সেই উগ্রবাদী। এরপর কি হয় তা মুভি দেখলেই জানা যাবে।

এবার আসি আমার কেমন লাগলো! মুভিতে কিয়ারা এবং আদিত্য ভালো অভিনয় করেছে। মল্লিকা দুয়া বেশ ভালো ছিল তার চরিত্রে। গানগুলোর বেশির ভাগই রিমেক। তাই আহামরি কিছু নয়।

এবার আসি নেগেটিভ দিকে। সত্যি বলতে আমি মুভিটির তেমন পজিটিভ কিছু খুঁজে পাইনি। আর এর ডায়ালগ গুলো বেশ অফেন্সিভ ছিল। পাকিস্তানকে এমনিতে ভারতীয় মুভিগুলোতে বাজে ভাবে পেশ করা হয়। এ মুভি তো একেবারে অন্য লেভেলে।

সামার যখন ইন্দুর বাসায় আসে প্রথমে সামারকে তার ভালো লাগলেও পরে যখন জানতে পারে সে পাকিস্তানি তখন তার আচরণ ১৮০ ডিগ্রি পালটে যায়। আর আরেকটি ডায়ালগ ছিল,

সকল মুসলমানই পাকিস্তানি নয়

মানে একটা পর্যায়ে মনে হয়েছে আমি হয়তো ভারত বনাম পাকিস্তান কোনো ক্রিকেট ম্যাচের গ্যালারিতে বসে ২ বিপরীত সমর্থকের কথোপকথন দেখছি। অনেক ডায়ালগ ছিল যেগুলোর আসলে কোনো মানেই হয়না।

এটি যে কোন জনরার মুভি ছিল সেটিই আমার বুঝতে কষ্ট হয়েছে। যদি বলে কমেডি , তাহলে আমি বলব আমার একটুও হাসি পায়নি। যেসব সো কল্ড জোক্স ছিল তার বেশির ভাগই ছিল অফেন্সিভ। যদি বলে রোমান্টিক জনরা তো আমি বলব, ভাইরে! আমার প্রিয় জনরা এটা। এমন করিস না জনরাটার সাথে ।

ফালতু একটি মুভি। কোনো মানে নেই এই মুভির। নারীর ক্ষমতায়নের কথা নিয়ে একটু স্ট্যান্ড করতে চেয়েছিল কিন্তু অফেন্সিভ ডায়ালগের মধ্যে আসলে সেটির দাঁড়ানোর জায়গাই হয়নি।

আর যে আমাকে মুভিটি দেখতে বলেছে, ” হচ্ছে তোমার, দাঁড়াও 🤬” আমার মুভিখোড় ভাই বোনেরা, এই অত্যাচার থেকে নিজেকে দূরে রাখুন। এই মুভি দেখা মানে জীবন থেকে ২ ঘণ্টা শুধু শুধু নষ্ট করা। না আছে কমেডি, না আছে কিছু। ফালতু মুভি এক কথায়।

  • Movie : Khuda Haafiz (2020)
  • Country : India
  • Genre : Action | Drama | Thriller
  • Director : Faruk Kabir
  • IMDb : 7.1/10
  • P.R. : 9.0/10

গানটা যতই শুনি ততই ভালো লাগে । ভালোবাসার সত্যিকারের অনুভূতির ছোঁয়া যেন রয়েছে গানটিতে । এতোদিনে নিশ্চয়ই সবাই বহুবার শুনে ফেলেছেন গানটি । বলছিলাম “খোদা হাফিজ” মুভির হৃদয় ছোঁয়া “জান বান গেয়ি” গানের কথা । গানের মতোই মুভিটাও খুব সুন্দর । সত্য ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বানানো হয়েছে মুভিটি ।

একজন সাধারণ মানুষ তার ভালোবাসার প্রিয় মানুষটিকে রক্ষা করার জন্য কতটা লড়াই করতে পারে তারই দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন ডিরেক্টর এই মুভিটিতে । মুভিটি অবশ্যই সবার দেখা উচিত কারন এতে রয়েছে দারুন একটি মেসেজ ।

Mujhe meri Nargis chahiye , baas !

হতভাগা সামিরের মুখ দিয়ে বের হওয়া প্রথম কথাই ছিল এটা । ভালোবাসার মানুষ , প্রিয় বউকে হারিয়ে পাগলপ্রায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার সামির । এই তো সেদিন তাদের বিয়ে হলো পারিবারিকভাবে ।

নার্গিস আর সামিরের ছিল সুখের সংসার । দুইজনই ভালো চাকরি করতো । হঠাৎ ই সব তছনছ হয়ে গেল একটি মাত্র ফোন কলে । ছুটে গেল সামির নোমান নামক এক দেশে তার ভালোবাসাকে খুঁজতে ।

কি হয়েছে নার্গিসের ? সুখের সংসারে কে আগুন লাগালো ? জানতে হলে দেখতেই হবে অপূর্ব এই মুভিটি । এই মুভির এক্স ফ্যাক্টর বিদ্যুৎ জামওয়ালের মাইন্ড ব্লোইং পারফরম্যান্স । লিড রোলে অনবদ্য ছিল সে । তার বডি ফিজিক , লুক , একশন দেখার মতো ছিল । হিরোইন শিভালিকা ওবেরয়ের থেকেও চোখ সরাতে পারি নি । এই মেয়েটা ইকটু বেশিই সুন্দর । অভিনয়েও সেরা পারফর্মেন্স দেখিয়েছে ।

বাকিদের অভিনয়ও ভালো ছিল । এর বাইরে মুভির প্রতিটা গানই হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়ার মতো । মুভির লোকেশনও ভালো ছিল । সব মিলিয়ে জমজমাট এক এন্টারটেইনমেন্ট প্যাকেজ । সবশেষে মুভির আরেকটি গানের লাইন দিয়েই শেষ করছি ..

Leave a Reply